বন্দুকের নলে বিএনপির জন্ম হয়েছিল : শাহীন চাকলাদার

দেশ প্রতিবেদক : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহীন চাকলাদার বলেন, আওয়ামী লীগের বর্ণাঢ্য ইতিহাস রয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। আর বন্দুকের নলে বিএনপির জন্ম হয়েছিল।

বিএনপির সারাদেশে সন্ত্রাস আর নৈরাজ্য সৃষ্টি করেছিল। সারের জন্য মানুষকে জীবন দিতে হয়েছিল। বিদ্যুতের অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। শুধু বিদ্যুতের খুটি বসানো হত। বিদেশ থেকে খাদ্য আমদানী করতে হত। কিন্তু আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলেছে। দেশে বিদ্যুতের ঘাটতি নেই, দেশ আজ খাদ্যে সয়ং সম্পূর্ণ। ২০২১ সালের মধ্যে দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে চলেছে। কেশবপুরে আজ আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ।

আরও পড়ুন: ইয়াবাসহ ৩ যুবক গ্রেফতার

রবিবার সন্ধ্যায় কেশবপুর উপজেলার সাগরদাঁড়ী ইউনিয়ন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সমন্বয়ে সাগরদাঁড়ী মধুমঞ্চে অনুষ্ঠিত কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শাহীন চাকলাদার আরও বলেন, দলের সকল ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে সাথে নিয়ে সর্বোচ্চ ভোটে আমাদের নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে হবে। নৌকা বিজয়ের মাধ্যমে কেশবপুর উপজেলার উন্নয়নের ধারা বাহিকতা বজায় রাখতে হবে।

সাগরদাঁড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ডাঃ আমানাত আলীর সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম রুহুল আমিন, সহ-সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাগরদাঁড়ী ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত, সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী আজাহারুল ইসলাম মানিক প্রমুখ।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এ.কে.এম খয়রাত হোসেন, সহ-সভাপতি যশোর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব হাসান সাদেক ও সোহরাব হোসেন, যশোর শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. আসাদুজ্জামান আসাদ, যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম, যশোর শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বিপু, যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী, কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম পিটু, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাসিমা সাদেক, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজা আক্তার নাহিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ স্বপন কুমার মুখার্জী, সাংগঠনিক সম্পাদক গৌতম রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর শেখ এবাদত সিদ্দিক বিপুল, সুফলাকাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ মাষ্টার, ত্রিমোহিনী ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান আনিস, বিদ্যানন্দকাটি ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন, পাঁজিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মুকুল, গৌরীঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান হাবিব, সিনিয়র আওয়ামী লীগনেতা সন্তোষ দাস, আলতাফ হোসেন বিশ্বাস, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী, মুক্তিযোদ্ধা মোসলেম উদ্দীন, অধ্যক্ষ মশিয়ার রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মফিজুর রহমান মফিজ, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এস এম বাবর আলী, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক মহিবুর রশিদ, সদস্য শাহাদাৎ হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এ্যাড. মিলন মিত্র, যুগ্ম-আহ্বায়ক পৌর কাউন্সিলর জামাল উদ্দীন সরদার, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি সৈয়দ নাহিদ হাসান, সাধারণ সম্পাদক রমেশ চন্দ্র দত্ত, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক প্যানেল মেয়র বিশ্বাস শহিদুজ্জামান শহিদ, সাবেক আহ্বায়ক প্রভাষক কাজী মুজাহীদুল ইসলাম পান্না, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রাবেয়া ইকবাল, সাধারণ সম্পাদিকা মমতাজ খাতুন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভানেত্রী অধ্যাপিকা রেবা ভৌমিক, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী ইতি, সাংগঠনিক সম্পাদিকা রেহেনা ফিরোজ, পৌর কাউন্সিলর আতিয়ার রহমান, পৌর কাউন্সিলর মফিজুর রহমান খান, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা ফাতেমা খাতুন, উপজেলা যুবলীগের অন্যতম নেতা আবু হাসান, আওয়ামী লীগনেতা গাজী গোলাম সরোয়ার, সাঈদুর রহমান সাঈদ, আবু বক্কার সিদ্দিক, মশিয়ার গাইন, কবির হোসেন, মাওঃ আব্দুল হালিম, শহিদুজ্জামান শাহিন, জি এম আলতাফ হোসেন, জি এম হাফিজুর রহমান, ডাঃ নূরুল ইসলাম, আব্দুর রশিদ, মিজানুর রহমান বাবু, জিয়াউর রহমান জিয়া, আমিন উদ্দীন, আঃ রউফ, হাবিবুর রহমান হাবিব, আব্দুল কুদ্দুস, নজরুল ইসলাম, আক্তারুজ্জামান, সাবেক পৌর কাউন্সিলর মনোয়ার হোসেন মিন্টু, উজ্জ্বল, স্বেচ্ছাসেবক লীগনেতা আব্দুল গফ্ফার, তরিকুল ইসলাম, আবুল বাসার খান, সেলিম খান, মাসুদুর রহমান, পৌর কাউন্সিলর মেহেরুন নেসা মেরী, পৌর কাউন্সিলর মনিরা খানম, ইউপি সদস্য কামাল হোসেন, ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম, ইউপি সদস্য হাফিজুর রহমান হাফিজ, ইউপি সদস্য মৃণাল দাস, ইউপি সদস্য নাদিরা বেগম, মহিলা আওয়ামী লীগের মঞ্জুয়ারা বেগম, আনোয়ারা বেগম, মমতাজ বেগম, আসিয়া, যুবলীগনেতা ওহেদুজ্জামান মিন্টু, শামীম রোজা, আল আলাল দিলু, আব্দুল আলীম, তহিদুর রহমান, ওবায়দুর রহমান নীল, মেহেদী হাসান শিমুল, তৌহিদুজ্জামান তহিদ, তরিকুল ইসলাম টুটুল, আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ।

দেশদর্পণ/আহা/দেদ/ম