সুশান্তের মৃত্যু পরিকল্পিত খুন, দাবি প্রত্যক্ষদর্শী স্বাস্থ্যকর্মীর

ওই প্রত্যক্ষদর্শীর দাবি-* সুশান্তের গলায় ১৫ থেকে ২০টা সুই ফোটানোর চিহ্ন ছিল। * গলায় এক জায়গায় সেলোটেপ লাগানো ছিল। * পা ভাঙা ছিল।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর আড়াই মাস হয়ে গেছে। এখনো সমাধান হয়নি মৃত্যুরহস্যের, বরং দিন দিন যেন ঘনীভূত হচ্ছে সেই রহস্য। বিশেষ করে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিবিআই) মামলার তদন্তের দায়িত্ব নেওয়ার পর নতুন নতুন তথ্য আসছে। আবারও সামনে এসেছে নতুন তথ্য, হাসপাতালের এক স্বাস্থ্যকর্মী বলছেন, সুশান্তের শরীরে সুই ফোটানোর চিহ্ন ছিল। নিজ পর্যবেক্ষণের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে তিনি দাবি করেন, সুশান্তকে খুন করা হয়েছে।

পুলিশ সুশান্তের লাশ নিয়ে গিয়েছিলেন মুম্বাইয়ের কুপার হাসপাতালে। সেখানকার এক স্বাস্থ্যকর্মীর সাক্ষাৎকার নিয়েছে ভারতের নিউজ নেশন নামে একটি চ্যানেল। ভিডিও সাক্ষাৎকারটিতে ওই স্বাস্থ্যকর্মীর পরিচয় গোপন রাখেন সাংবাদিক। স্বাস্থ্যকর্মীর মুখ ঢেকে দেওয়া হয়। সেখানে দেওয়া বক্তব্যে রীতিমতো চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

ওই কর্মী সুশান্তের লাশ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় থেকে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া পর্যন্ত ছিলেন সঙ্গে। চ্যানেলের গাড়িতে বসে ওই স্বাস্থ্যকর্মী বলেন, ‘আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, এটা খুনই ছিল। সুশান্তের গলায় ১৫ থেকে ২০টা সুই ফোটানোর চিহ্ন ছিল। এমনকি গলায় এক জায়গায় সেলোটেপ লাগানো ছিল। পা ভাঙা ছিল।’

১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় নিজ বাসা থেকে উদ্ধার করা হয় বলিউডের এই তরুণ নায়কের লাশ। যদিও প্রাথমিক ও চূড়ান্ত তদন্ত শেষ মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছিল, সুশান্তের অপমৃত্যু আত্মহত্যাই। কিন্তু সুশান্তের পরিবারসহ ভক্তরা এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা মানতে নারাজ। সেই তালিকায় রয়েছেন বলিউডের অসংখ্য তারকা থেকে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বও। এমনকি বিহার পুলিশের ডিজিও তদন্ত শুরুর পর আত্মহত্যার কথা মেনে নিতে পারছিলেন না।

শুরু থেকেই সুশান্তের পরিবার সিবিআই তদন্তের দাবি তুলে আসছে। এরপর শুরু হয় তাঁর মৃত্যুর সিবিআই তদন্ত। সুশান্তের মৃত্যুর জন্য অভিনেতার পরিবার বারবার আঙুল তুলেছেন রিয়া চক্রবর্তীর দিকে। সিবিআই তদন্তে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসতে শুরু করেছে।

ভিডিও সাক্ষাৎকারটি টুইটারে শেয়ার করেছেন সুশান্তের বোন শ্বেতা। তিনি লিখেছেন, ‘এসব খবর জানতে পেরে আমার হৃদয় হাজারবার ভেঙে যাচ্ছে। জানি না ওরা ভাইয়ের সঙ্গে কী করেছিল। দয়া করে ওদের গ্রেপ্তার করুন।’

আগস্ট ৩০, ২০২০ at ১২:৩৫:৫২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/বাআ/এনআফটি