Take a fresh look at your lifestyle.

বেনাপোলে ও এমএস এর দোকা‌ন পরিদর্শন করলেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মামুন হোসেন খান

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

যশোরের বেনাপোলে সরকার কর্তৃক পরিচালিত ভোক্তাদের স্বস্তি দিতে হতদরিদ্রদের জন্য স্বল্প মুল্যে খাদ্য শস্য, ও এমএস এর চাল বিক্রয় কেন্দ্রের চাল সঠিক ভাবে বিক্রি করা ও কোন রকম কারচুপি হচ্ছে কিনা, তা ডিলার কেন্দ্র ঘুরে পরিদর্শন করলেন শার্শা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মামুন হোসেন খান।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) সকালে তিনি ওএমএস এর দোকা‌নের মাধ‌্যমে চাল বিক্রির জন্য বেনাপোল ছোট আঁচড়া মোড়ে ডিলার জুলফিকার আলী মন্টু, কাগজপুকুরে জুলফিকার আলী জুলু, দিঘিরপাড়ে আঃ মালেক ও বেনাপোল পৌরসভার পাশে মাহাতাব উদ্দিন এর দোকান ঘুরে দেখেন।

ডিলার জুলফিকার আলী মন্টু বলেন, চালের দাম বৃদ্ধি হওয়ার কারণে, সরকার সাধারণ গরীবের কথা চিন্তা করে ওএমএস এর মাধ্যমে চাল বিক্রি শুরু করেন। প্রতিদিন ১ টন করে চাল, ২০০ জন নিম্ন আয়ের মানুষ ৩০ টাকা দরে জনপ্রতি ৫ কেজি করে চাল কিনতে পারবেন। এই ৪ ডিলারের মাধ্যমে বেনাপোলে সপ্তাহে শুক্রবার ও শনিবার বাদে ৫ দিন এ কার্যক্রম চালু রয়েছে।

বেনাপোল সাদিপুর গ্রামের ভুক্তভোগী সাদিয়া খাতুন (শ্রমিক) বলেন, চালের দাম ৩০ টাকা প্রতি কেজি পেয়ে আমরা খুশি। পরিবার নিয়ে এখন আমাদের আর বেশি চিন্তা থাকবেনা। এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

শার্শা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মামুন হোসেন খান বলেন, প্রতিটি কেন্দ্রে হতদরিদ্রদের মাঝে সুষ্ঠু ভাবে চাল বিক্রি হচ্ছে। এটা সরকারের একটা মহৎ উদ্যোগ। আর এ মহৎ উদ্যোগকে যেকোন ভাবে সফল করতে হবে। কোন ডিলার যেন কোনভাবে কারচুপি করতে না পারে, সেজন্য তিনি চাল বিক্রয় কেন্দ্র নিয়মিত পরিদর্শন করছেন বলে জানান।

এপ্রিল ০৪, ২০২৩ at ১৩:০১:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এএস্ব/সুরা

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

%d bloggers like this: